Home | মতামত | রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ বাণী, ২০২৪ পর্যন্ত বাংলাদেশ

রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ বাণী, ২০২৪ পর্যন্ত বাংলাদেশ

নাঈমুল ইসলাম খান : ১. ডিসেম্বরে একাদশ জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে এবং এতে বিএনপিসহ সকল দলই অংশ নেবে।
২. নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রতিদিনই দেশের রাজনৈতিক অঙ্গন উষ্ণ (ওয়ার্ম) হতে থাকবে এবং ধাপে ধাপে বেশি উত্তাপ ছড়াবে।
৩. নির্বাচন অত্যন্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে এবং নির্বাচনি পরিবেশ, বিশেষ করে ভোটের দিনটি উত্তেজনাসহ ব্যাপক অংশগ্রহণমূলক এবং উৎসবমুখর থাকবে। বিচ্ছিন্ন সন্ত্রাস ও সহিংসতাও থাকবে।

৪. আওয়ামী লীগ তার জোটের শরিকদের নিয়ে সরকার গঠন করবে। বিএনপি সংসদে শক্তিশালী বিরোধী দল হবে।
৫. একাদশ জাতীয় সংসদে নির্বাচিতরা হবেন শক্তিশালী ও গ্লামারাস ব্যক্তিবর্গ এবং সংসদের অধিবেশন হবে প্রাণবন্ত এবং দুর্দান্ত। সংসদের তাৎপর্যপূর্ণ কার্যক্রম নির্বাচনের কিছু দুর্বলতা ভুলিয়ে দেবে, অন্তত সাময়িকভাবে।

৬. একাদশ সংসদের মেয়াদকালে বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ রাজনীতির গতিধারায় আমূল পরিবর্তন, ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণ, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা প্রতিষ্ঠা, নির্বাচন কমিশনে ঐতিহাসিক পরিবর্তনসহ আইনের সংস্কার, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতা ও দায়িত্বে গুণগত পরিবর্তনসহ দেশে মানবাধিকার, মতপ্রকাশ ও সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতা শক্তিশালী করতে প্রয়াস নিতে দেখা যাবে।

৭. বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী অত্যন্ত জাঁকজমকপূর্ণভাবে উদ্্যাপন করা হবে।
৮. বাংলদেশের সকল রাজনৈতিক দলকে নিয়ে একটি নতুন ব্যাপকভিত্তিক সামাজিক রাজনৈতিক সমঝোতায় উপনীত হওয়ার মধ্য দিয়ে দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব-বিভেদ অবসানের প্রক্রিয়া দৃশ্যমান হয়ে উঠবে।

৯। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে বাংলাদেশের স্বাধীনতা-পরবর্তী সবচেয়ে নিরপেক্ষ পরিবেশে, আনন্দমুখর ও অংশগ্রহণমূলক এবং এযাবৎকালের সবচেয়ে তাৎপর্যপূর্ণ একটি জাতীয় নির্বাচন, সেই ভোটাভুটিতে গণরায় কী হবে, তার পূর্বাভাস দেয়া অসম্ভব।

About admin

Check Also

‘এই দিন দিন নয় আরও দিন আছে’

গণফোরাম গঠনের সময় আমি ভোরের কাগজের রিপোর্টার। সৈয়দ বোরহান কবীর আর আমি ড. কামাল হোসেনের মতিঝিল অফিসে গেলাম। এরপর ব্যারিস্টার আমীর-উল ইসলামের অফিসে। ব্যারিস্টার আমীর তখন মতিঝিলে বসেন। শুরুটাতে উত্তাপ ছিল। কারণ, ব্যারিস্টার আমীর-উল ইসলাম, পংকজ ভট্টাচার্য, সাইফুদ্দিন আহমেদ মানিকসহ ডান-বামের বিশাল রাজনৈতিক একটি গ্রুপ ছিলেন কামাল হোসেনের সঙ্গে। সেই সময় দেশজুড়ে তোলপাড়। সবার ধারণ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *