Home | জাতীয় | রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন: নিরাপত্তা যাচাইয়ে আসছেন জাতিসংঘের দূত

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন: নিরাপত্তা যাচাইয়ে আসছেন জাতিসংঘের দূত

শীর্ষনিউজ, ঢাকা: আসন্ন রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন কতটা নিরাপদ তা খতিয়ে দেখতে ঢাকায় আসছেন জাতিসংঘের মিয়ানমার বিষয়ক বিশেষ দূত ক্রিস্টিন সরনার বার্গনার। রোহিঙ্গা ইস্যুতে বুধবার (৭ নভেম্বর) রাতে ঢাকায় আসছেন তিনি।
সুইডিশ কূটনীতিক বার্গনার বাংলাদেশ সফরে কক্সবাজারের একাধিক শিবির পরিদর্শন করবেন। এছাড়া সরকারের সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে রোহিঙ্গা পরিস্থিতি নিয়ে আলাপ করবেন তিনি।
কূটনৈতিক সূত্র জানিয়েছে, বার্গনার ৭ থেকে ১১ নভেম্বর পর্যন্ত বাংলাদেশ সফর করবেন। এসময় তিনি কক্সবাজারের একাধিক রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করবেন। এছাড়া রোহিঙ্গা ইস্যুতে সরকারের সংশ্লিষ্ট নীতি নির্ধারণী পর্যায়ে আলোচনার চেষ্টা চালাবেন।
এদিকে, বাংলাদেশ-মিয়ানমার দুই দেশের জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপ গত ৩০ অক্টোবর এক বৈঠক শেষে মধ্য নভেম্বর থেকে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রত্যাবাসন নিয়ে দুই দেশের নেয়া এই সিদ্ধান্তের প্রতি জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক একাধিক সংস্থা ও রাষ্ট্র সমর্থন জানায়নি।
সূত্র বলেছে, যাদের নাম প্রত্যাবাসনের জন্য দেয়া হয়েছে তাদের সঙ্গেও কথা বলবেন বার্গনার। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের পুরো বিষয় মূল্যায়ন করে তিনি জাতিসংঘসহ সংশ্লিষ্টদের তা জানাবেন।
এদিকে, জাতিসংঘের মানবাধিকার বিশেষজ্ঞ ইয়াহি লি স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (৬ নভেম্বর) জেনেভায় এক বিবৃতিতে বলেন, ‘রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের জন্য মিয়ানমারে কোনো ধরনের অনুকূল পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে, এমন কোনো আলামত চোখে পড়ছে না।
তিনি বলেন, ‘ফিরে যাওয়া রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তার বিষয় এখনো নিশ্চিত করতে পারেনি মিয়ানমার সরকার। আমার কাছে তথ্য আছে যে, প্রত্যাবাসনের জন্য নাম দেয়া রোহিঙ্গারা আতঙ্কে রয়েছেন।’
লি আরও বলেন, ‘যারা মিয়ানমার ফিরে যাবেন তাদের জন্য কয়েকটা অবকাঠামো নির্মাণ করা হয়েছে। কিন্তু এতেই কী রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়? নিরাপদে বসবাস, পূর্ণ নাগরিক মর্যাদা, চলাফেরার স্বাধীনতা, কাজ করার স্বাধীনতা এবং স্বাস্থ্য ও শিক্ষা সেবা নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত প্রত্যাবাসন ঝুঁকিপূর্ণ।’
শীর্ষনিউজ/এনএস
 

About admin

Check Also

বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে ভারত কি তার কৌশল বদল করেছে?

শীর্ষনিউজ ডেস্ক : দু'হাজার তেরো সালের ডিসেম্বর মাস। ঢাকায় এক সফরে এলেন ভারতের তৎকালীন পররাষ্ট্র সচিব সুজাতা সিং। তিনি দেখা করলেন জাতীয় পার্টির নেতা এইচ এম এরশাদের সাথে, বলা হয় - তিনি তাকে অনুরোধ করেছিলেন পরের বছর ৫ই জানুয়ারির নির্বাচনে অংশ নেবার জন্য। এই সফর তখন ব্যাপক আলোচনার জন্ম দিয়েছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *