Home | সংবাদ | ‘ছাত্রলীগের জন্যই প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন ঢাবি উপাচার্য’

‘ছাত্রলীগের জন্যই প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন ঢাবি উপাচার্য’

ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ বলেছেন, কোটা সংস্কার আন্দোলন চলাকালে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের তৎপরতায় প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্য ড. মো. আখতারুজ্জামান।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে শুক্রবার দুপুরে পহেলা বৈশাখের কর্মসূচির নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।
সোহাগ বলেন, কোটা সংস্কারে আন্দোলনের সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবনে হামলা হয়েছে। আমরা সেখানে গিয়ে উপাচার্যকে বাঁচিয়েছি। ছাত্রলীগ পাশে থেকে রক্ষা না করলে কেউ বেঁচে থাকতেন না। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কাছে সবাই নিরাপদ।

ছাত্রলীগের বিশ্ববিদ্যালয় শাখা সভাপতি আবিদ আল হাসান বলেন, সেদিন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য এশাকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। সেদিন এশাকে বাঁচানোই আমাদের মূল উদ্দেশ্য ছিল। সেই লক্ষ্যেই আমরা এশাকে বহিষ্কার করেছিলাম। তবে এখন অভিযোগটি প্রমাণ হয়নি।

এশার ওপর ছাত্রীদের চড়াও হওয়ার যেমন ভিডিও বের হয়েছে, তেমনি এশার হাতে ছাত্রীদের নিপীড়নেরও অডিও ছড়িয়ে পড়ার বিষয়ে তিনি বলেন, এরকম অভিযোগ ভিত্তিহীন। এটা একটা গুজব। অডিও’র ভয়েস কার ছিল তা আমরা এখনও নিশ্চিত নই।

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন প্রিন্স বলেন, আন্দোলনকারী সেই শিক্ষার্থীদের মধ্যে শান্তি-শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার জন্য আমরা এশাকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। এখন তদন্তের মাধ্যমে সঠিক সিদ্ধান্তে এসেছি।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার রাতে কোটা সংস্কারের জন্য আন্দোলনকারীদের ওপর নির্যাতনের অভিযোগে এশাকে ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছিল। একই সঙ্গে তাকে হল থেকেও বহিষ্কার করা হয়।

About admin

Check Also

উল্টো যেতে বাধা দেয়ায় পুলিশ কর্মকর্তার পা থেঁতলে দিল মন্ত্রণালয়ের বাস!

ট্রাফিক পুলিশ কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেনকে ইচ্ছাকৃতভাবে চাপা দিয়ে পা থেঁতলে দেয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছেন। এমন পরিস্থিতিতে তার জীবন নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে। তিনি এখন স্কয়ার হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে ভর্তি রয়েছেন। চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে পরিবার বলছে, দেলোয়ারের অবস্থা শঙ্কটাপন্ন। তার জীবন বাঁচানোটাই এখন মুখ্য বিষয়। দেশের বাইরে নিয়ে তার উন্নত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *