Home | সংবাদ | খালেদা জিয়ার জামিন নাকচে সরকারের হাত নেই : আইনমন্ত্রী

খালেদা জিয়ার জামিন নাকচে সরকারের হাত নেই : আইনমন্ত্রী

দেশের বিচার ব্যবস্থা সম্পূণ স্বাধীন দাবি করে আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন নাকচের বিষয়ে সরকারের কোনো হাত নেই ।  খালেদা জিয়াকে জামিন দেওয়া না দেওয়ার বিষয়টি সম্পূর্ণই আদালতের এখতিয়ার।’ 

বুধবার ( ১১ এপ্রিল)  দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন তিনি।

আইনমন্ত্রী বলেন, আমাদের সময়ে সরকার কখনোই আদালতের কার্যক্রমে হস্তক্ষেপ করেনি। বিচার কার্যের বিষয়ে বিচারকরাই সিদ্ধান্ত নেন। পিপি তার বক্তব্য আদালতে তুলে ধরেন। আসামিপক্ষের বক্তব্য শুনে বিচারক সিদ্ধান্ত দেন। এখানে সরকারের কিছুই করার নেই।’

সম্প্রতি কুমিল্লার একটি আদালত বিএনপির চেয়ারপারসনের জামিন আবেদন নাকচ করে। এরপর থেকেই বিএনপি অভিযোগ করে আসছে- সরকারের ইচ্ছায় আদালত খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন নাকচ করেছেন।

এর আগে  আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক জেলা জজ ও সমপর্যায়ের ১৫ জন বিচারককে ১৫টি সেডান কার এবং দুটি জেলা জজশিপ ও একটি ম্যাজিস্ট্রেসিকে তিনটি মাইক্রোবাসের চাবি হস্তান্তর করেন। 

পাঁচ কোটি ৯৩ লাখ ৫৯ হাজার ৫০০ টাকা ব্যয়ে কেনা এসব বাহন হস্তান্তর প্রসঙ্গে আইনমন্ত্রী বলেন, বিচার বিভাগের স্বাধীনতা সুদৃঢ় করার অন্যতম ভিত্তি হলো অবকাঠামো উন্নয়ন। এর অংশ হিসেবে প্রথমে চিফ জুডিশিয়াল আদালত ভবন নির্মাণ এবং বিদ্যমান জেলা জজ আদালত ভবনগুলো ঊর্ধ্বমুখী সম্প্রসারণ করা হয়েছে এবং এখনো করা হচ্ছে। তার পরের বিষয়টি হলো বিচারকদের জন্য যানবাহনের ব্যবস্থা করা। এটিও করা হচ্ছে। এ প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে আজ ১৫ জন জেলা জজকে ১৫টি কার এবং দুটি জেলা জজশিপ ও একটি ম্যাজিস্ট্রেসির বিচারকার্যের জন্য তিনটি মাইক্রোবাস দেওয়া হলো।

About admin

Check Also

উল্টো যেতে বাধা দেয়ায় পুলিশ কর্মকর্তার পা থেঁতলে দিল মন্ত্রণালয়ের বাস!

ট্রাফিক পুলিশ কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেনকে ইচ্ছাকৃতভাবে চাপা দিয়ে পা থেঁতলে দেয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছেন। এমন পরিস্থিতিতে তার জীবন নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে। তিনি এখন স্কয়ার হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে ভর্তি রয়েছেন। চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে পরিবার বলছে, দেলোয়ারের অবস্থা শঙ্কটাপন্ন। তার জীবন বাঁচানোটাই এখন মুখ্য বিষয়। দেশের বাইরে নিয়ে তার উন্নত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *